Cure Cancer at home with fruits and vegetable

By Suvasish Poddar – 23rd June, 2017

There are so many diseases found in the world. Some of them can be cured and some others had been killing people for years.

 

For example, cancer is the name for a group of diseases in which the body’s cells are changed in appearance and function. This disease is the second leading cause of death in the United States accounting for 22 percent of all deaths in this country.

I am writing this article to let you know that cancer can be cure at home with fruits and vegetables. In this article i will talk about all this fruits and vegetables that is very helpful and highly recommended in terms of cancer cure.

 বিশ্বের অনেক রোগ আছে। তাদের কিছু নিরাময় হচ্ছে এবং কিছু রোগের কারনে বছরের পর বছর মানুষ মারা যাচ্ছে । উদাহরণস্বরূপ, ক্যান্সার রোগের একটি গোষ্ঠীর নাম যেটা মানুষের দেহে কোষের আকৃতি আর কাজের ধরন পাল্টে দেয় ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর দ্বিতীয় প্রধান কারণ হচ্ছে এই রোগ / মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ২২ শতাংশ মৃত্যু এই রোগের কারনে হয় । আমি এই নিবন্ধটি লিখছি আপনাদের কে জানানোর জন্য যে ফল এবং শাকসবজি দিয়ে বাড়িতে ক্যান্সার নিরাময় হতে পারে । এই নিবন্ধে আমি ফল ও শাক-সব্জির সম্পর্কে লিখবো যা ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য খুব সহায়ক হবে ।

Ginger : Ginger juice is very useful for cold, fever, constipation and general treatment. Also ginger’s antioxidant and Anti-inflammatory material reduces the risk of stomach cancer. Another review uncovers ginger contains an impactful exacerbate that could be up to 10,000 circumstances more viable than routine chemotherapy in focusing on the growth undifferentiated organisms at the base of cancer malignancy.

ঠান্ডা, জ্বর, কোষ্ঠকাঠিন্য এবং সাধারণ চিকিৎসার জন্য আদা রস খুব উপকারী । এছাড়াও আদা এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং এন্টি-প্রদাহ উপাদান যা ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় । আরো একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে যে ক্যান্সারে আক্রান্ত কোষগুলি খুজে বের করে ধ্বংস করার জন্য আদায় এমন একটি উপাদান আছে যা ক্যামিওথেরপি দেওয়ার থেকে ১০০০০ গুন বেশী উপকারী ।

Turmeric :Various research center reviews on cancer cells have demonstrated that curcumin has anticancer impacts. Turmeric has curcumin whose anti-oxidant and Anti-inflammatory material helps to cure cancer. Turmeric juice prevent colon, prostate, breast and skin cancer risk. Research has demonstrated that there are low rates of specific types of cancer in nations where individuals eat curcumin at levels of around 100 to 200 mg a day over drawn out stretches of time.

বিভিন্ন গবেষনা থেকে জানা গেছে যে হলুদে অ্যান্টি-ক্যান্সার ইমপ্যাক্ট হয় ক্যান্সারে আক্রান্ত কোষগুলির উপর ।হলুদে আছে কারকুমিন যার অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান আছে যা ক্যান্সার সারাতে সাহায্য করে ।হলুদের রস ক্লোন , প্রস্টেট , ব্রেস্ট এবং স্কিন ক্যান্সার -এর ঝুকি কমায় ।সমীক্ষা করে পাওয়া গেছে যে দেশের লোক প্র্তিদিন ১০০-২০০ মি.গ্রা. হলুদ সেবন করেন সেই দেশে ক্যান্সারের সম্ভাবনা কম ।

Garlic : Garlic is an excellent material to prevent cancer. Garlic has huge amount of sulfur, arginine, oligosaccharide, flavonoids and selenium Which is very useful for human health. According to research reports, if anyone eat one garlic everyday, then his/her stomach, colon, intestine, pancreas, and breast cancer risk can be greatly reduced.

রসুন ক্যান্সার প্রতিরোধে একটি চমৎকার উপাদান। রসুনে প্রচুর পরিমাণে সালফার, আর্জিনিন, অলিগোস্যাকচারাইড, ফ্লেভোনিওড এবং সেলেনিয়াম রয়েছে যা মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপযোগী । গবেষণা রিপোর্ট অনুযায়ী, যদি প্রতিদিন একটি রসুন খাওয়া যায় তবে তার পেট, কোলন, অন্ত্র, অগ্ন্যাশয়, এবং স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি ব্যাপকভাবে কমে যাবে ।

Grape :Grapes contain characteristic chemicals that can possibly stop the spread of cancer cells. The skin of red grapes is a particularly rich source of an antioxidant called resveratrol. Grape juice and red wine also contain this antioxidant. According to the National Cancer Institute, resveratrol may be useful in keeping cancer from beginning or spreading. Lab studies have found that it limits the growth of many kinds of cancer cells; in men, moderate amounts of red wine have been linked to a lower risk of prostate cancer.

আঙ্গুরের মধ্যে রয়েছে চারিত্রিক রাসায়নিক যা ক্যান্সার কোষের বিস্তারকে থামিয়ে দিতে পারে । লাল আঙ্গুরের ত্বক বিশেষ করে রিসেট্র্যাটোল নামে এক প্রকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট-এর একটি সমৃদ্ধ উৎস। আঙ্গুরের রস এবং লাল দ্রাক্ষারস এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ধারণ করে। ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের মতে, ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়া থেকে আটকানোর জন্য রিসেট্র্যাটোল কার্যকর হতে পারে। ল্যাব গবেষণা পাওয়া গেছে এটি বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধির কে সীমিত করে ; অল্প পরিমানে রেড ওয়াইন পুরুষদের মধ্যে প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় ।

Kiwi : Kiwi has huge amount of vitamin C and anti-oxidant which can fight against cancer. Kiwi contains a number of flavonoids and carotenoids responsible for protecting DNA from oxidative stress. The vitamin C content and phytonutrients help to prevent a number of issues related to DNA damage and oxidative stress, including: osteoarthritis, rheumatoid arthritis, asthma, and cancer growth.
কিউই-তে বিপুল পরিমাণ ভিটামিন সি এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যা ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে । কিউই-তে বেশ কিছু ফ্লেভোনিওয়েড এবং ক্যারোটিওনিওস রয়েছে অক্সিডেটিভ চাপ থেকে ডিএনএ রক্ষা করার জন্য । ভিটামিন সি এবং phytonutrients অস্টিওআর্থারাইটিস, রিমিটয়েড আর্থ্রাইটিস, হাঁপানি, এবং ক্যান্সারের বৃদ্ধিসহ ডিএনএ ক্ষতি এবং অক্সিডেটিভ চাপ সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে ।

Broccoli : Scientist found a compound in the green vegetable not only helps prevent cancer, it can also help treat the disease. The highest concentrations of the cancer-fighting compound are found in young sprouts of broccoli, in addition to a dietary supplement called broccoli sprout extract. Researchers from Texas A&M Health Science Center have concluded that the supplement can be used as a ‘field-to-client’ way to prevent – or even treat – colon cancer.
বিজ্ঞানীরা সবুজ সবজি মধ্যে একটি যৌগ পেয়েছেন যা শুধুমাত্র ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে না চিকিৎসা করতে সাহায্য করে ।।ক্যান্সারের সাথে লড়াই করার উপাদান গুলি সর্বোচ্চ সংখ্যায় ব্রোকোলির কচি স্প্রাউটগুলিতে পাওয়া যায় । টেক্সাস এএন্ড এম হেলথ সায়েন্স সেন্টারের গবেষকরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে সম্পূরকটি কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধ এবং চিকিৎসা করতে ‘ফিল্ড-টু-ক্লায়েন্ট’ হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে ।

Berry : Blackberry, Blueberry, and strawberries has huge amount of Pterostilbene antioxidant which is well known to fight against cancer. Therefore it is recommended to eat berries every day.

ব্ল্যাকবেরি, ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি এবং প্রচুর পরিমাণে পেট্রোস্টিলবিন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য সুপরিচিত। অতএব প্রতিদিন বেরি খাওয়া সকলের দরকার ।

Indeed, all these fruits and vegetables that i mentioned are very useful to prevent the risk of Cancer. These fruits and vegetables does not cost more to buy or plant in our garden, instead these fruits and vegetables helps us in million way.
                       
       প্রকৃতপক্ষে, আমি উল্লেখ করেছি যে এই সব ফল ও সবজিগুলি ক্যান্সারের ঝুঁকি প্রতিরোধে খুবই সহায়ক। এই ফল এবং সবজি কিনতে বা চাষ করতে বেশী খরচ হয় না , পরিবর্তে এই ফল এবং সবজি  আমাদের বিভিন্নভাবে সাহায্য করে ।

More Updated News From Chakdaha 24x7