রাজপুতরা ছিল ব্রিটিশের দাস , বিতর্কে গীতিকার জাভেদ আখতার

By Staff Reporter – November 21, 2017

পদ্মাবতী নিয়ে এবার বিতর্কে জড়ালেন গীতিকার জাভেদ আখতার।শ্যুটিংয়ের দিন থেকে শুরু করে সবসময় প্রচারের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে এই ছবি৷

ইতিমধ্যে বিক্ষোভের মাঝে ছবির মুক্তি পিছিয়ে গিয়েছে। এমনকি হরিয়ানার এক বিজেপি নেতা দীপিকা ও সঞ্জয় লীলা বনশালীর মাথার দাম রেখেছে ১০ কোটি টাকা ।

তবে এইবার গীতিকার জাভেদ আখতার সঞ্জয় লীলা বনশালীর পাশে দাড়াতে গিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন ।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে রাজপুত আর রাজওয়াড়ারা কখনও অস্ত্র ধরেনি ।কিন্তু তারা এখন ছবি ও এক পরিচালকের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমেছে।

পাশাপাশি তিনি বলেছেন, ২০০ বছর ধরে রাজস্থানের এইসব রানা, রাজা, মহারাজারা ব্রিটিশ রাজত্বের গোলাম ছিলেন।তার প্রশ্ন তখন তাঁদের রাজপুত সম্মান আর মর্যাদা কোথায় ছিল ?

তার কথায় রাজপুতরা ছিল ব্রিটিশের দাস ।রাজপুতরা ব্রিটিশের বিরুদ্ধে কখনও লড়েনি, বরং তারা ইংরেজের হাতে কাঠের পুতুল ছিল।

তবে জাভেদ আখতারের এমন মন্তব্যে রীতিমতো ক্ষুব্ধ রাজপুত কার্ণি সেনা ।এমনকি তারা জাভেদের কুশপুতুল পোড়ানোর পাশাপাশি রাজস্থানে জাভেদ প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছেন ।  ।

প্রসঙ্গত, পদ্মাবতীর বিরুদ্ধে প্রথম রাস্তায় নামা রাজপুত কার্ণি সেনা।ছবিতে ইতিহাস বিকৃত করার অভিযোগে তারা বিক্ষোভ শুরু করেন । বিক্ষোভের আঁচ ছড়িয়ে পড়ে সারা দেশে ।

এমনকি ছবির পরিচালক ও অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকনকে প্রাণ নেশার হুমকি দেওয়া হয় । এরই মধ্যে জাভেদ আখতারের রাজপুতদের কে নিয়ে এমন মন্তব্য নি:সন্দেহে আগুনে ঘি ঢালার কাজ করল । 

More Updated News From Chakdaha 24x7